dannews24.com | logo

৮ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ২২শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

কুমিল্লা জেলার বরুড়া উপজেলার শাকপুর নতুন বাজার সংলগ্ন আয়ফলের নেছা সঠিক ন্যায়বিচার চায়

প্রকাশিত : ফেব্রুয়ারি ২৫, ২০২১, ২৩:১২

কুমিল্লা জেলার বরুড়া উপজেলার শাকপুর নতুন বাজার সংলগ্ন আয়ফলের নেছা সঠিক ন্যায়বিচার চায়

 

স্টাফ রিপোর্টারঃ

কুমিল্লা জেলার বরুড়া উপজেলার শাকপুর নতুন বাজার সংলগ্ন আয়ফলের নেছা সঠিক ন্যায়বিচার চায় , স্বামীঃ মৃত হানিফ মিয়া, সাং শাকপুর কাদের মাওলানা বাড়ি থানা বরুড়া,আমি একজন বিধবা মহিলা আমার কোন ভাই বোন কেউ নাই আমি এতিম এই মর্মে অভিযোগ করতেছি যে অামার চাচাতো ভাই অাব্দুল মতিন (৬৫) পিতা মৃত অালী আশরাফ সর্ব সাং শাকপুর বরুড়া কুমিল্লা।

অাব্দুল মতিন গংদের অত্যাচার নিপীড়নে দীর্ঘদিন যাবৎ সহ্য করে অাসতাছি। প্রায় দীর্ঘ ২৮ থেকে ৩০ বৎসর যাবৎ আমার পিতৃ সূত্রে মালিকানাধীন ১১ শতক ও বাড়ির ভিটিতে ৪.০০ শতক জায়গা জোড় পূর্বক ভোগ দখল করিয়া আসিতাছি।এলাকার চেয়ারম্যান মেম্বার ও গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ কে বিষয়টি অবহিত করলে কয়েকবার শালিশের মাধ্যমে সমাধান করে দেন কিন্তু আব্দুল মতিন গং সকল কিছু মেনে নিও আবার সেই জবরদখল শুরু করেন সেই পরিপ্রেক্ষিতেই ১৬-০৯-২০১৯ ইং তারিখ পুনরায় এলাকার চেয়ারম্যান মেম্বার ও গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গকে নিয়ে শালিশ বৈঠক হয়।তখন ১০০ টাকার ষ্টাম্পে লিখিত ভাবে উভয়পক্ষের স্বাক্ষর ও উপস্থিগনের স্বাক্ষরিত একটি সোলেনামা তৈরি করে দেন যাতে অদূর ভবিষ্যতে কোন সমস্যা সৃষ্টি না হয়।

কিন্তু গত ২২-০১-২০২১ ইং তারিখ সকাল আনুমানিক ১০.০০ ঘটিকার সময় পূর্বের নির্ধারিত সম্পত্তি পরিমানের নিমিত্তে আমি উল্লখিত গংদের মধ্যে আবদুল গফুর, পিতা মৃত আলী আসরাফ সাং শাকপুর তাদের বাড়িতে যাই, একপর্যায়ে উল্লেখিত গংদের সাথে সম্পত্তির পাওনার বিষয় নিয়ে বিতর্ক হয়।এই সময় তাহারা ক্ষিপ্ত হইয়া অন্যান্য গংদের সম্মুখে আমাকে এলোপাতাড়ি কিল, ঘুষি মারিয়া আমার শরীরে বিভিন্ন স্থানে নিলা ফুলা জখম করে ও আমার পড়নে থাকা বস্ত্র টানাহ্যাঁচড়া করে খুলে ফেলার চেষ্টা করে ।

পরে আমি ২৪-০১ ২০২১ ইং বরুড়া থানা বরাবর একটি অভিযোগ দায়ের করি যাহার নং SDR – 124-72

পরে ১৫-০২-২০২১ তারিখে বরুড়া থানার এস আাই চন্দন দেবনাথ সমাধানের লক্ষ্যে দিনক্ষণ ঠিক করে, এলাকার চেয়ারম্যান মেম্বার ও গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ কে নিয়ে সরকারি আমিন দ্বারা উক্ত সম্পত্তিতে আমাকে বুঝিয়ে দিয়ে টিনের বেড়া দিয়ে পরিবারিক রাস্তার সুবিধা রেখে আবারো সমাধান করে দেন গত ১৭-০২-২০২১ ইং আব্দুল মতিন গংদের সকলে মিলে তাদের বাড়ির উঠানে সামনে নিজেরাই টিনের বেড়া দেন এবং পরিবারের চলাফেরা রাস্তা এয়ারটেল রবি টাওয়ারের প্রবেশমুখে কাঠ দ্বারা সহবাস এবং বিভিন্ন কার দ্বারা আবদ্ধ করে রাখেন যাহা সম্পূর্ণ ঝুঁকিপূর্ণ।

তারা সমাজের ও আইনের লোকদের কোন তোয়াক্কা করে না, তাই আমি স্থানীয় প্রশাসন ও বাংলাদেশ সরকারের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি তাদেরকে আইনের আওতায় এনে সুষ্ঠু তদন্ত সাক্ষাপে আনের আওতাধীন এনে তাদের বিচার হোক।






অফিস: হোল্ডিং#৩৫৯,রোড# ৮/২ মধ‍্য সরদারপাড়া, দুপচাঁচিয়া, বগুড়া।

সম্পাদক ও প্রকাশক: মো: মোছাব্বর হাসান মুসা। 01711366298/01812550877 mushanews2011@gmail.com

নির্বাহী সম্পাদক
ইমরানুল হাসান (বি এ অনার্স) ম‍্যানেজমেন্ট।

 

বার্তা সম্পাদক: মো:জাকারিয়া হাসান। 01796032336

মহিলা সম্পাদিকা: মোনিকা আক্তার মালা। ( বিএ অর্নাস) রাষ্ট্রবিজ্ঞান।