dannews24.com | logo

১১ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ২৫শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

খেয়ালী গল্পঃ মুতালেপ চাচার পর্ব-২

প্রকাশিত : জুন ০৮, ২০২১, ১৭:০২

খেয়ালী গল্পঃ মুতালেপ চাচার পর্ব-২

তুহিন আফসারীর কলাম থেকে:ইদানিং মুতালেপ চাচাকে পাওয়া মুশকিল। খুবই ব্যস্ত থাকেন। গল্পের জন্য পাওয়া যাচ্ছে না। অনেক কষ্টে চাচাকে নিয়ে আনোয়ার মামুর চায়ের দোকানে বসলাম। চাচার গায়ে নিভাঁজ পাঞ্জাবি। এতো সাজুগুজুর কারন শুনতেই জানা গেলো আজ চাচার বিয়ের দিন। মুতালেপ চাচার বিয়ের দিন মানে স্পেশাল কিছু পাওয়া যাবে। আমিও একটু নড়েচড়ে বসলাম। তাই লস পুষিয়ে অন্য প্রসঙ্গে না গিয়ে চাচার বিয়ের গল্পই বলতে বললাম।

চাচা শুরু করলেন,
তখন টগবগিয়ে চলা যুবক আমি। বিয়ের পরও বাজার পড়তি হয়নি। তাই যেখানেই যায় একটু এদিক সেদিক ঘুরি আর কি। তো পয়লাবারের মতোন শশুর বাড়ি গেছি। তোর চাচিরে বাড়ি থুয়ে আমি মোটামুটি টাইপের মাঞ্জা মেরে গিরামের মদি হাটতি বের হইছি। লোকজন মুটামুটি তাকিয়ে তাকিয়ে দ্যাকচে। আমারও ভাব বাড়চে। তো আমি আরো ভাব নিয়ার জন্নি আমারমত মাজ্ঞামার টাইপের শালা সস্পর্কের কয়েকজনকে কলাম, হ্যারে, তুগার গিরামে এরাম কেউ নেই যেকেনে একটু ভাব-টাব নিয়া যায়। আমার কতা শুনে ওরা আমার মুকির দিকি তাকিয়ে থাকলো। আমি আরো ভাব নিয়ে কলাম, ওরে তুগার গিরামে টাঙ্কি মারার মতোন কেউ নেই, যার সাথে সগোলি একটু ভাবটাব মারে!!! টাইম পাস করে!!
এইবার আর চুপ থাকলোনা ওরা। ওগের মদি একজন সটান দাড়িয়ে বললো, দুলাভাই, আমাগের এট্টা হেবি ছিলো!! খুব টাইম খেতো আমাগের কিন্তুক একোন তো নেই!!
কেন!! সে কি মরে গিয়েচ!!
ওরে মরবে ক্যান, যিডা ছিলো সেইডা একোন আপনার ঘরে!! আমাগেরই টাইম কাটেনা!

এই পর্যন্ত বলেই মুতালেপ চাচা ভিজিয়া উঠিলেন।
আমিও আর কথা বাড়ালাম না। আমার চোখের সামনে যুবক মুতালেপ চাচার চেহারাটা ভেসে উঠলো।

আমি তখন `ফিলিং, কিএক্টা অবস্থা!!!!
আমার না হয় এই অবস্থা কিন্তু আপনার…….






অফিস: হোল্ডিং#৩৫৯,রোড# ৮/২ মধ‍্য সরদারপাড়া, দুপচাঁচিয়া, বগুড়া।

সম্পাদক ও প্রকাশক: মো: মোছাব্বর হাসান মুসা। 01711366298/01812550877 mushanews2011@gmail.com

নির্বাহী সম্পাদক
ইমরানুল হাসান (বি এ অনার্স) ম‍্যানেজমেন্ট।

 

বার্তা সম্পাদক: মো:জাকারিয়া হাসান। 01796032336

মহিলা সম্পাদিকা: মোনিকা আক্তার মালা। ( বিএ অর্নাস) রাষ্ট্রবিজ্ঞান।