dannews24.com | logo

৩রা জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ১৭ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

দীর্ঘ দিন ধরে আত্রাই হাসপাতালের এ্যাম্বুলেন্স ড্রাইভার না থাকায় রোগীদের চরম দূর্ভোগের স্বীকার

প্রকাশিত : নভেম্বর ১১, ২০২০, ১৮:৪৭

দীর্ঘ দিন ধরে আত্রাই হাসপাতালের এ্যাম্বুলেন্স ড্রাইভার না থাকায় রোগীদের চরম দূর্ভোগের স্বীকার

আত্রাই (নওগাঁ)প্রতিনিধিঃ– নওগাঁর আত্রাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে দীর্ঘদিন থেকে এ্যাম্বুলেন্স ড্রাইভার না থাকায় সেবা নিতে আসা রোগীরা চরম দূর্ভোগের শিকার হচ্ছেন। সেবা নিতে আসা রোগীদের সরকারী এ্যাম্বুলেন্সের ভাড়ার তুলনায় অনেক বেশি ভাড়া দিয়ে প্রাইভেট গাড়িতে করে রোগী পরিবহন করতে হচ্ছে।

 

এতে করে একদিকে রোগীর স্বজনরা লোকশানের শিকার হচ্ছেন অপরদিকে চরম দূর্ভোগও পোহাতে হচ্ছে। জানা যায়,আত্রাই উপজেলা হাসপাতালের এ্যাম্বুলেন্স ড্রাইভার মোঃ আসলাম পারভেজ টিপু গত সেপ্টেম্বর মাসের ১তারিখে মহাদেবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্রেক্সে বদলী হয়। তার বদলীর দীর্ঘ আড়াইমাস অতিবাহিত হলেও এ হাসপাতালে নতুন কোন এ্যাম্বুলেন্স ড্রাইভার নিয়োগ দেয়া হয় নাই।

ফলে তার বদলীর পর থেকে পদটি শূন্য রয়েছে। এ দিকে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ দ্রুত এ্যাম্বুলেন্স ড্রাইভারনিয়োগ ব্যাপারে জোড়ালো কোন পদক্ষেপ না নেওয়ায় দীর্ঘদিন ধরে এখানে এ হাসপাতালে এ্যাম্বুলেন্স ড্রাইভার নিয়োগ দেয়া হচ্ছে নাবলে অনেকের মন্তব্য। এ্যাম্বুলেন্স ড্রাইভার নিয়োগ না দেওয়ায় সরকারী এ্যাম্বুলেন্স টিপড়ে থাকায় অকেজো হয়ে যাবার সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে।

উপজেলা পর্যায়ের হাসপাতাল হিসেবে জটিল ও গুরুতর রোগীকে উন্নত চিকিৎসার জন্য নওগাঁ জেলা সদর হাসপাতাল অথবা রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে।স্থানান্তরিত রোগীদের পরিবহনের জন্য ছুটতে হচ্ছে প্রাইভেট পরিবহনের দিকে এতে রোগীর স্বজনদের গুনতে হচ্ছে সরকারী এ্যামবুলেন্স এর ভাড়ার তুলনায় অধিক অর্থঅপর দিকে রোগীর স্বজননা সঠিক সময় মত পাচ্ছে না ভাড়ার গাড়ি।এত করে রোগীদের চরম দূর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। উপজেলা বিশা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আব্দুল মান্নান মোল্লা বলেন, গত কয়েকদিন আগে আমি সন্ত্রাসী হামলার শিকার হয়ে গুরুতর আহত অবস্থায় আত্রাই হাসপাতাল ভর্তি হই।

সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক আমাকে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে উন্নত চিকিৎসার জন্য পাঠানো হলে আমি ঐ দিন রাতে আত্রাই হাসপাতালের এ্যাম্বুলেন্স ড্রাইভার না থাকায় আমাতে দ্বিগুন ভাড়া দিয়ে প্রাইভেট মাইক্রোবাসে রাজশাহীতে যেতে হয়েছে। এত আমাকে চরম দূর্ভোগ পোহাতে হয়েছে।

এ ব্যাপারে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পানা অফিসার ডাঃ রোখসানা হ্যাপি বলেন, এ্যাম্বুলেন্স ড্রাইভারের পদটি হওয়ায় আমি বিষয়টি উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষকে এ্যাম্বুলেন্স ড্রাইভার নিয়োগ এর জন্য লিখিত ভাবে জানিয়েছি। এ ছাড়াও একাধিক বার টেলিফোন ও মৌখিকভাবে জানিয়েছি






অফিস: হোল্ডিং#৩৫৯,রোড# ৮/২ মধ‍্য সরদারপাড়া, দুপচাঁচিয়া, বগুড়া।

সম্পাদক ও প্রকাশক: মো: মোছাব্বর হাসান মুসা। 01711366298/01812550877 mushanews2011@gmail.com

নির্বাহী সম্পাদক
ইমরানুল হাসান (বি এ অনার্স) ম‍্যানেজমেন্ট।

 

বার্তা সম্পাদক: মো:জাকারিয়া হাসান। 01796032336

মহিলা সম্পাদিকা: মোনিকা আক্তার মালা। ( বিএ অর্নাস) রাষ্ট্রবিজ্ঞান।