dannews24.com | logo

২৪শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | ৯ই মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

পলাশবাড়ীতে কৃষি জমি হয়ে যাচ্ছে পুকুর হুমকির মুখে করতোয়া বাধ

প্রকাশিত : ফেব্রুয়ারি ১৬, ২০২১, ২৩:৩৫

পলাশবাড়ীতে কৃষি জমি হয়ে যাচ্ছে পুকুর হুমকির মুখে করতোয়া বাধ

 

শাহারুল ইসলাম, গাইবান্ধা প্রতিনিধিঃগাইবান্ধার পলাশবাড়ী উপজেলার বিভিন্ন জায়গায় কৃষি জমির মাটি বিক্রি করে ঐ জমি পুকুরে রুপান্তর করা হচ্ছে। খননকৃত জায়গাগুলো পুকুরে পরিনত হওয়ায় একদিকে কৃষি জমি হচ্ছে পুকুর আর অন্যদিকে ঘরবাড়ি হুমকির মুখে।

 

১৬ফেব্রুয়ারি দুপুরে উপজেলার মহদীপুর ইউনিয়নের ছোট ভগবানপুর গ্রামে দেখা যায়, অবাধে মাটি কাটার চিত্র।

জানা যায়, ছোট ভগবানপুর গ্রামের ফেরদৌস মিয়ার পরিবার কৃষি জমি থেকে মাটি কেটে অবাধে বিক্রি করে আসছে। সেখানে ১২-১৫ ফুট গহিন করে বিশালাকৃতির পুকুর করা হচ্ছে। সেই সঙ্গে এসব মাটি কাঁকড়া (ট্রাক্টর) দিয়ে বহন করায় ঐ এলাকার রাস্তা গুলোতে খালেখন্দের সৃষ্টি হচ্ছে।

এদিকে হোসেনপুর ইউনিয়নের কদমতলী এলাকা থেকে আমবাগান পর্যন্ত করতোয়া বাঁধের অবস্থা ভয়াবহ। ঐ এলাকার কৃষি জমি থেকেও মাটি বিক্রি করে কৃষি জমি বানানো হচ্ছে পুকুর। সেই মাটি পরিবহনে ব্যবহার করা হচ্ছে অবৈধ যান কাকড়া। ঐসব কাকড়া বাঁধের উপর দিয়ে চলাচলের কারনে বাঁধটি হুমকির মুখে পড়েছে। এমনকি বাঁধের বিভিন্ন স্থানে গর্তে পরিনত হয়েছে। যার ফলে হাজার হাজার মানুষের চলাচলের অনুপযোগি হয়ে পড়েছে বাঁধটি। এছাড়া মাটি খননের কারনে বর্ষা মৌসুমে বাঁধটি ভেঙে যাওয়ার আশঙ্কাসহ শতাধিক হেক্টর ফসলি জমি ও ঘরবাড়ি হুমকির মুখে পড়তে পারে বলে এলাকাবাসীর অভিযোগ।

বিদ্যমান পরিস্থিতে ক্ষতির আশঙ্কা মানুষরা গভীর দুশ্চিন্তায় পড়েছেন।
অনুসন্ধানে আরও জানা যায়, আমবাগান এলাকার কার্তিক বাবু নামের এক ব্যক্তি দীর্ঘদিন থেকে করতোয়া নদী থেকে মাটি বিক্রি আসছে। ঐসব মাটি পরিবহনে তিনি দিন রাত কয়েকটি কাকড়া ব্যবহার করছেন।

হোসেনপুর ইউনিয়নের করতোয়া পাড়ার স্থানীয় এক বাসিন্দা জানান, খননকৃত জায়গাগুলোতে মাটি দিয়ে ভরাট না করা হলে, বর্ষাকালে বিলীন হতে পারে ঘরবাড়ি ও আবাদী জমি। সম্ভাব্য এ সমস্যা সমাধানে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করছেন তিনি।






অফিস: হোল্ডিং#৩৫৯,রোড# ৮/২ মধ‍্য সরদারপাড়া, দুপচাঁচিয়া, বগুড়া।

সম্পাদক ও প্রকাশক: মো: মোছাব্বর হাসান মুসা। 01711366298/01812550877 mushanews2011@gmail.com

নির্বাহী সম্পাদক
ইমরানুল হাসান (বি এ অনার্স) ম‍্যানেজমেন্ট।

 

বার্তা সম্পাদক: মো:জাকারিয়া হাসান। 01796032336

মহিলা সম্পাদিকা: মোনিকা আক্তার মালা। ( বিএ অর্নাস) রাষ্ট্রবিজ্ঞান।