dannews24.com | logo

৭ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ২১শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

বগুড়ার শিবগঞ্জে মালিকবিহীন ১৪ বস্তা চাল উদ্ধার

প্রকাশিত : অক্টোবর ২১, ২০২০, ১১:১০

বগুড়ার শিবগঞ্জে মালিকবিহীন ১৪ বস্তা চাল উদ্ধার

 

রশিদুর রহমান রানা শিবগঞ্জ ( বগুড়া) প্রতিনিধিঃ বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলার সৈয়দপুরে ইউনিয়নে জগন্নাথপুর থেকে মালিকবিহীন ১৪ বস্তা চাল উদ্ধারের খবর পাওয়া গিয়েছে। এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার দুপুর ১টায় উপজেলার সৈয়দপুর ইউনিয়নের বাদুরতলা মোড়ে হতে মালিকবিহীন ১৪ বস্তা চাল ভ্যানযোগে পাচার কালে এলাকাবাসীর আটক করে পুলিশকে খবর দেয়।

খবর পেয়ে মোকামতলা পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের একটি টিম ঘটনাস্থলে গিয়ে দুইটি ভ্যানে থাকা মালিকবিহীন ১৪ বস্তা চাল উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়।

বাদুরতলার ব্যবসায়ী রফিকুল জানায়, এই চাল সৈয়দপুর ইউনিয়নের ইউপি সদস্য মোতালেবের ছেলে ডিলার মামুনের গোডাউন থেকে সরকারি মোড়ক পরিবর্তন করে প্লাস্টিক জাতীয় বস্তা করে কৌশল পাচার করছিলো বলে এলাকায় গুঞ্জন ছড়িয়ে পরেছে, সত্য মিথ্যা আমি জানিনা।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ততোধিক এলাকাবাসী বলেন, স্থানীয়রা ওই দুই ভ্যান চালককে চাউলের বিষয়ে জিজ্ঞাসা করলে তারা ডিলার মামুনের গোডাউনের কাছ থেকে চাল নিয়ে আসার কথা জানান।

এলাকাবাসী আরও জানান, বেশ কয়েক মাস পূর্বে ইউপি সদস্য মোতালেব মেম্বারের ছেলে ডিলার মামুন সরকারি খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির চাল কালো বাজারে পাচার করতে গিয়ে তার চাল আটক হয়েছিলো।

ডিলার মানুষ জানান, পাচারকৃত চাল আমার নয়, অন্য কাহারও হবে হয়তো, অন্য কোথাও থেকে চাল কিনে নিয়ে এই পথদিয়ে যাওয়ার সময় জনতা কর্তৃক আটক করা হয় বলেও তিনি জানান। তিনি আরও বলেন আমার বিরুদ্ধে একটি মহল ষড়যন্ত্র করে এমন নাটক সাজিয়েছে।

মেম্বার মোতালেব বলেন, এ বিষয়ে আমি কিছুই জানিনা, আপনার নিকট হতে প্রথম শুনলাম।

উপজেলা খাদ্য কর্মকর্তা আবুল বাসার বলেন, উদ্ধার হওয়া চাল খাদ্যবান্ধব কর্মসূচি না।

এবিষয়ে পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ সনাতন চন্দ্র সরকার বলেন, উদ্ধার হওয়া চালগুলো খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির কিনা তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

ওসি এসএম বদিউজ্জামান বলেন, চালের মালিককে খুঁজে পাওয়া যায়নি, সত্য উদঘাটনের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

তবে সচেতন মহল বলছে, উদ্ধার হওয়া চালগুলো ডিলার মামুনের গোডাউনের ১০টাকা কেজি দরের খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির চাল। সে বিতরণ না করে কৌশলে চালগুলো কালোবাজারি করার সময় জনতা কর্তৃক ধরা পরে। সে বাঁচার জন্য বিভিন্ন মহলকে ম্যানেজ করার চেষ্টা করছে। বিষয়টি একালায় চাঞ্চল্য সৃষ্টি করেছে।






অফিস: হোল্ডিং#৩৫৯,রোড# ৮/২ মধ‍্য সরদারপাড়া, দুপচাঁচিয়া, বগুড়া।

সম্পাদক ও প্রকাশক: মো: মোছাব্বর হাসান মুসা। 01711366298/01812550877 mushanews2011@gmail.com

নির্বাহী সম্পাদক
ইমরানুল হাসান (বি এ অনার্স) ম‍্যানেজমেন্ট।

 

বার্তা সম্পাদক: মো:জাকারিয়া হাসান। 01796032336

মহিলা সম্পাদিকা: মোনিকা আক্তার মালা। ( বিএ অর্নাস) রাষ্ট্রবিজ্ঞান।