dannews24.com | logo

১০ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | ২৬শে অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

শেরপুরে পৌরসভার একটি ওয়ার্ডসহ দশ গ্রামের কয়েকশ পরিবার বন্যায় পানিবন্দি সীমাহীন দূর্ভোগ

প্রকাশিত : জুলাই ১২, ২০২০, ১৫:১৮

শেরপুরে পৌরসভার একটি ওয়ার্ডসহ দশ গ্রামের কয়েকশ পরিবার বন্যায় পানিবন্দি সীমাহীন দূর্ভোগ

শেরপুর (বগুড়া) প্রতিনিধি : উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢল ও আষাঢ়ের অবিরাম বর্ষণে বগুড়ার শেরপুরে বাঙালি ও করতোয়া নদীর পানি অস্বাভাবিকভাবে বাড়তে শুরু করেছে। পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকায় পৌরশহরের ৩নং ওয়ার্ডসহ উপজেলার অন্তত দশটি গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। এসব এলাকার অনেক বাসা-বাড়ি ও রাস্তা-ঘাট পানিতে ডুবে গেছে। ফলে পানিবন্দি হয়ে পড়েছেন কয়েকশ’ পরিবার। নিরাপদ আশ্রয়ের সন্ধানে ছুটছেন বানভাসী মানুষ। সীমাহীন দূর্ভোগ পোহাচ্ছেন তারা।

শেরপুর পৌরসভার সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ডের কাউন্সিলর নিমাই ঘোষ জানান, করতোয়া নদীর পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকায় তার ওয়ার্ডের ঘোষপাড়া, পূর্বদত্তপাড়া ও উত্তরসাহাপাড়া এলাকায় বন্যার পানি ঢুকে পড়েছে। এসব এলাকার চল্লিশ থেকে পঞ্চাশটি বাড়িঘরে পানি উঠেছে। ডুবে গেছে রাস্তা-ঘাট। পানিবন্দি হয়ে পড়েছেন অর্ধশতাধিক পরিবার। এরমধ্যে পনেরটি পরিবারের লোকজন বাসা-বাড়ি ছেড়ে স্থানীয় একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে আশ্রয় নিয়েছেন বলে জানান এই কাউন্সিলর।

এদিকে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, বাঙালি নদীর পানি অস্বাভাবিক বৃদ্ধি পাওয়ায় উপজেলার খামারকান্দি ইউনিয়নের ঝাঁজর, মাগুতাইড়, শুভগাছা ও খানপুর ইউনিয়নের চৌবাড়িয়া, বথুয়াবাড়ী, শালফা, শুভলী, বেড়েরবাড়ি বন্যার পানিতে প্লাবিত হয়েছে। এসব এলাকার রাস্তা-ঘাট, ফসলি জমি ও জলাশয় পানিতে তলিয়ে গেছে। উঠতি ফসল রোপা-আউশ ধান ডুবে যাওয়ায় চাষীরা মারাত্মক ক্ষতির মুখে পড়েছেন। এছাড়া অনেক বাসাবাড়িতেও পানি উঠেছে। ফলে চরম দুর্ভোগের মধ্যে দিনাতিপাত করছেন তারা।

বিশেষ করে গবাদি পশু নিয়ে চরম বিপাকে পড়েছেন ওইসব পানিবন্দি মানুষ। এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. লিয়াকত আলী সেখ বলেন, কয়েকদিন ধরে আষাঢ়ের অবিরাম বৃষ্টি হচ্ছে। এরপর উজান থেকে আসা পাহাড়ী ঢলের পানিতে ওই দুই নদীর পানি বাড়ছে। এতে করে পৌরসভার একটি ওয়ার্ডসহ উপজেলার বিভিন্ন এলাকার নিম্লাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। বন্যাকবলিত এলাকাগুলো সবসময় মনিটরিং করা হচ্ছে। সেইসঙ্গে বানভাসী মানুষদের সব ধরণের প্রয়োজনীয় সহযোগিতা দেয়ার আশ^াস দেন এই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা।

Facebook Comments

অফিস: হোল্ডিং#৩৫৯,রোড# ৮/২ মধ‍্য সরদারপাড়া, দুপচাঁচিয়া, বগুড়া।




সম্পাদক ও প্রকাশক: মো: মোছাব্বর হাসান মুসা।

নির্বাহী সম্পাদক
ইমরানুল হাসান (বি এ অনার্স) ম‍্যানেজমেন্ট।

 

বার্তা সম্পাদক: মো:জাকারিয়া হাসান।

মহিলা সম্পাদিকা: মোনিকা আক্তার মালা।