dannews24.com | logo

১৫ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | ৩১শে অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

নন্দীগ্রামের ৩টি ইউনিয়নে ঈদে করোনা বিস্তার রোধে বিশেষ সতর্কবার্তা

প্রকাশিত : জুলাই ২৬, ২০২০, ১৬:১৪

নন্দীগ্রামের ৩টি ইউনিয়নে ঈদে করোনা বিস্তার রোধে বিশেষ সতর্কবার্তা

Spread the love
বিশেষ প্রতিনিধি জুয়েলঃ--বগুড়ার নন্দীগ্রাম উপজেলার তিনটি ইউনিয়নে, ঈদ-উল আযহার ঈদ উদযাপনে,  মহামারী করোনা ভাইরাস বিস্তার রোধে নিজ নিজ ইউনিয়ন বাসিকে বিশেষ সতর্ক বার্তা দিয়েছেন, ৩ ইউপি চেয়ারম্যান।
তারা হচ্ছেন, ২নং সদর ইউপি চেয়ারম্যান প্রভাষক আব্দুল বারী (বারেক), ৫নং ইউপি চেয়ারম্যান জনাব মোঃ আবুল কালাম আজাদ, ৪নং ইউপি চেয়ারম্যান জনাব মোঃ আঃ মতিন।
 তাদের সতর্ক বার্তায় নিজ নিজ ইউনিয়ন বাসীর উদ্দেশ্যে বলেছেন, নিজে বাঁচতে চাইলে, পরিবারকে বাঁচাতে চাইলে, দেশকে বাঁচাতে চাইলে, কেউ করোনা ভাইরাস কে অবহেলা করবেন না। পুরো বিশ্ব যে বিষয় নিয়ে চিন্তিত সে বিষয়ে উদাসীন হবেন না। পাড়া গ্রামে এখনও যারা সতর্ক নন, তারা একটু ভাবুন, সরকার কেন কোটি কোটি টাকা খরচ করছে, স্কুল-কলেজের মত প্রতিষ্ঠান কেন বন্ধ ঘোষনা করেছে ভেবে দেখেছেন কি, বর্তমান বিশ্বে কোটি কোটি মানুষ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হচ্ছে, মারা যাচ্ছে লক্ষ লক্ষ মানুষ, যেখানে বিশ্বের বড় বড় দেশ করোনা ভাইরাস নিয়ে হিমশিম খাচ্ছে সেখানে বাংলাদেশের মতো জনবহুল ছোট দেশে করোনার বিস্তার ঘটলে, আমাদের অবস্থাটা কি হবে একবার ভেবে দেখুন, ইচ্ছে করে আগুনে হাত দিলে আগুন কিন্তু ছাড়বে না,
তাই পবিত্র ঈদ-উল আযহার ঈদ উদযাপন উপলক্ষে ঢাকা সহ বিভিন্ন জেলা থেকে আসা প্রতিটি ব্যক্তি ও ইউনিয়ন বাসী কে স্বাস্থ্যবিধি মেনে, সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে ঈদ আনন্দ উপভোগ করতে এবং কোন মতেই মাক্স ছাড়া বাড়ির বাহির বের না হতে সবার প্রতি অনুরোধ জানিয়ে আশা প্রকাশ করেন, আমরা যদি সবাই নিজ নিজ দায়িত্বে করোনা প্রতিরোধে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নির্দেশনা মেনে চলি, তাহলে খুব শীঘ্রই এই করোনা মুসিবত থেকে রক্ষা পাবো ইনসা-আল্লাহ।
পরিশেষে, ইউনিয়ন বাসী সবার সুস্বাস্থ্য কামনা করে, সবাই কে পবিত্র ঈদ-উল-আযহার শুভেচ্ছা জানান,

Facebook Comments

অফিস: হোল্ডিং#৩৫৯,রোড# ৮/২ মধ‍্য সরদারপাড়া, দুপচাঁচিয়া, বগুড়া।




সম্পাদক ও প্রকাশক: মো: মোছাব্বর হাসান মুসা।

নির্বাহী সম্পাদক
ইমরানুল হাসান (বি এ অনার্স) ম‍্যানেজমেন্ট।

 

বার্তা সম্পাদক: মো:জাকারিয়া হাসান।

মহিলা সম্পাদিকা: মোনিকা আক্তার মালা।