dannews24.com | logo

১৫ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | ৩১শে অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

কাহালু থানা ভবনের অবকাঠামোর উন্নয়ন বর্তমানে আর্কষণীয় দর্শনীয় স্থান

প্রকাশিত : আগস্ট ২৩, ২০২০, ১৪:৪০

কাহালু থানা ভবনের অবকাঠামোর উন্নয়ন বর্তমানে আর্কষণীয় দর্শনীয় স্থান

Spread the love

কাহালু (বগুড়া) প্রতিনিধিঃ “প্রতিটি থানা হবে দর্শনীয় স্থান” মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঘোষনার প্রেক্ষিতে বগুড়ার কাহালু থানার সৌন্দর্য বর্ধন কাজ শুরু করেন কাহালু থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. জিয়া লতিফুল ইসলাম।

মো. জিয়া লতিফুল ইসলাম গত ০৫/০৫/১৯ইং তারিখে কাহালু থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) হিসেবে যোগদান করার পর বগুড়া পুলিশ সুপার মহোদয়ের দিক-নির্দেশনায় তিনি কাহালু থানা ভবনের অবকাঠামো উন্নয়ন, থানার কর্তব্যরত অফিসারের কক্ষের উন্নয়ন, থানা হাজত খানার আধুনিক করণ, থানার নিরাপত্তা নিশ্চিতকল্পে থানা ভবন সহ থানা চত্বর, থানা এলাকার গুরুত্বপূর্ণ স্থানে সিসি টিভি ক্যামেরা স্থাপন, থানায় আগত সেবা প্রত্যাশীদের অভ্যর্থনা কক্ষ আধুনিক করণ, থানার নারী ও শিশু হেল্প ডেক্র কক্ষের উন্নয়ন সহ থানার অভ্যন্তরে ফলজ ও বনজ বৃক্ষরোপন, থানা চত্বরে অবস্থিত পুকুরঘাট নির্মাণ, থানার অভ্যন্তরে পাকা ঢালাই রাস্তা নির্মাণ এবং থানার অভ্যন্তরে মধ্যভাগে ব্রিটিশ আমলের স্থাপনা শৈলী পানির উৎস হিসেবে ব্যবহৃত ইন্দিরা (অকার্যকর) সংস্কার সহ মসজিদ ও থানায় টাইল্স স্থাপন, থানা গেটে কাহালু পৌরসভার মেয়রের অর্থায়নে পথচারীদের দৃষ্টি নন্দন বসার স্থান নির্মাণ ও থানা গেটের সামনে এম পির বরাদ্দে পানির ফুয়ারা নির্মাণএবং সর্বশেষ করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) প্রতিরোধে বগুড়া জেলার পুলিশ সুপার আলী আশরাফ ভূঞা বিপিএম (বার) এর সার্বিক তত্ত্বাবধানে কাহালু থানা গেটে “ডিসিনফেকশন চেম্বার” বসানো সহ আইন শৃংখলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে তিনি বিশেষ ভুমিকা পালন করে আসছেন।

ইতিপূর্বে মোঃ জিয়া লতিফুল ইসলাম বগুড়ার শাজাহানপুর থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) হিসেবে কর্মরত থাকাকালে উক্ত থানার সৌন্দর্য বর্ধনের ব্যাপক ভুমিকা রেখেছিলেন যা বিভিন্ন মহলের প্রশংসিত হয়েছে।

এ ব্যাপারে কাহালু থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. জিয়া লতিফুল ইসলাম এর সাথে কথা বলা হলে তিনি জানান, আমি একদিন চাকুরীজনিত কারণে থানা থেকে বদলি হয়ে যাবো, কিন্তুু আমি যে থানার সৌন্দর্য বর্ধনের কাজ করেছে তা থেকে যাবে, আমি যদি কিছু ভাল কাজ করি থাকি তাহলে কাহালুর মানুষ অবশ্যয় মনে রাখবে। তিনি আরও বলেন, অমি যে থানায় চাকুরী করেছে সেই থানায় কিছু সৌন্দর্য বর্ধনের কাজ করার চেষ্টা করেছে।

Facebook Comments

অফিস: হোল্ডিং#৩৫৯,রোড# ৮/২ মধ‍্য সরদারপাড়া, দুপচাঁচিয়া, বগুড়া।




সম্পাদক ও প্রকাশক: মো: মোছাব্বর হাসান মুসা।

নির্বাহী সম্পাদক
ইমরানুল হাসান (বি এ অনার্স) ম‍্যানেজমেন্ট।

 

বার্তা সম্পাদক: মো:জাকারিয়া হাসান।

মহিলা সম্পাদিকা: মোনিকা আক্তার মালা।