dannews24.com | logo

১৫ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | ৩১শে অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

গাবতলীতে দূনীর্তি প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি আঃ বাছেদ মারা গেছেন সুজন সংগঠনের শোক

প্রকাশিত : আগস্ট ৩০, ২০২০, ১৩:১৫

গাবতলীতে দূনীর্তি প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি আঃ বাছেদ মারা গেছেন সুজন সংগঠনের শোক

Spread the love
মুহাম্মাদ আবু মুসা:বগুড়ার গাবতলী উপজেলা দূনীর্তি প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি ও কৃষি অফিসের সাবেক উপ-সহকারী উদ্ভিত সংরক্ষণ কর্মকর্তা আলহাজ¦ আব্দুল বাছেদ (৬৫) ইন্তেকাল করেছেন ইন্না—রাজিউন। তিনি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হলে গত শুক্রবার (২৮আগষ্ট/২০) রাত ৯টায় শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হন। চিকিৎসাধীন অবস্থায় গতকাল রোববার (৩০আগষ্ট/২০) সকাল সাড়ে ৬টায় তিনি ইন্তেকাল করেন। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৬৫বছর। তিনি স্ত্রী, ১ছেলে ২মেয়ে, নাতী-নাতনীসহ বহু গুনগ্রাহী রেখে গেছেন। গতকাল বাদ যোহর গাবতলীর নাড়–য়ামালা ইউনিয়নের চককাতুলী গ্রামে তাঁর নামাজে জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন সম্পন্ন করা হয়। এতে শরিক হয়ে ছিলেন বিভিন্ন শ্রেনী পেশার মানুষ। এ দিকে তাঁর মৃত্যুতে গভীর শোক জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছেন সুজন-সুশাসনের জন্য নাগরিক গাবতলী উপজেলা কমিটির নেতৃবৃন্দ। বিবৃতিদাতারা হলেন সংগঠনের সহ-সভাপতি ডাঃ মোস্তফা কামাল, সাজেদুর রহমান মোহন, মাহবুবুর রহমান ছোটন, সাধারণ সম্পাদক সাংবাদিক মুহাম্মাদ আবু মুসা, যুগ্ম সম্পাদক মাসুম মিয়া, সাংগঠনিক সম্পাদক আল আমিন মন্ডল, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক নাছরিন সুলতানা, কোষাধ্যক্ষ ফজলুল হক বাবলু, নির্বাহী সদস্য কান্তি কুমার রায়, ইফতেখার আহম্মেদ রাঙ্গা, সাজ্জাদুর রহমান সুজা, আবু নছর মোহাম্মদ আলম, মতিয়ার রহমান দুলু, মিনা বেগম, গাজী নাহিদ চৌধুরী সায়েম, মিলি বেগম, ডাঃ শাহাদৎ হোসেন, আব্দুস সালাম, বিউটি আকতার, আতাউর রহমান প্রমূখ। বিবৃতিতে তাঁর রুহের মাগফিরাত কামনা ও শোকাহত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানানো হয়েছে। একই সাথে বলা হয়েছে আলহাজ¦ আব্দুল বাছেদ মানুষের কল্যাণে কাজ করেছেন। তিনি বিভিন্ন সামাজিক ও সেবামূলক কাজে জড়িত ছিলেন। তাঁর শূণ্যতা আর পুরণ হবে না।

Facebook Comments

অফিস: হোল্ডিং#৩৫৯,রোড# ৮/২ মধ‍্য সরদারপাড়া, দুপচাঁচিয়া, বগুড়া।




সম্পাদক ও প্রকাশক: মো: মোছাব্বর হাসান মুসা।

নির্বাহী সম্পাদক
ইমরানুল হাসান (বি এ অনার্স) ম‍্যানেজমেন্ট।

 

বার্তা সম্পাদক: মো:জাকারিয়া হাসান।

মহিলা সম্পাদিকা: মোনিকা আক্তার মালা।