dannews24.com | logo

৯ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | ২৫শে অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

গুজব হলেও আজব বটে!

প্রকাশিত : সেপ্টেম্বর ২৬, ২০২০, ১৪:৫০

গুজব হলেও আজব বটে!

সাপাহার উপজেলার হাপানিয়া শিয়ালমারী গ্রামের পার্শ্বে দাইড়কা দীঘি নামক এক দীঘির পাড়ে জোড় বেধেঁ থাকা দুটি তালগাছ উপড়ে দীঘির পানিতে নেমে যাওয়ায় সেখানে তৈরী হয়েছে অনেক কল্পকাহিনী। অনেকেই এই তালগাছ সরে গিয়ে পানির মধ্যে দাঁড়িয়ে থাকাকে এক ভৌতিক কান্ড বলে মন্তব্য করে এলাকায় তোলপাড় হুলুস্থুল কান্ড ঘটে ফেলেছেন।
Image may contain: tree, sky, plant, outdoor, water and nature
খোঁজ নিয়ে জানা গেছে গত ২৪সেপ্টম্বর রাতে ওই দীঘির পাড়ে থাকা ওই তাল গাছ দুটি পাড় থেকে উপড়ে দীঘির পানিতে নেমে যায়। ঘটনাক্রমে গাছ দুটি পানিতে পড়ে না গিয়ে উপড়ে যায়া জায়গা হতে প্রায় ৪০ফিট দুরে দীঘির পানিতে গিয়ে আবার দাঁড়িয়ে যায়। বর্তমানে সেখানে গাছ দুটি দাঁড়িয়ে স্বাভাবিকভাবে দাঁড়িয়ে রয়েছে। এই ঘটনাকে ওই এলাকার লোকজন একটি ভৌতিক কান্ড বলে চালানোর চেষ্টা করলে হাজার হাজার দর্শনার্থী ওই দীঘির পাড়ে গিয়ে ভিড় করছে। সরে জমিনে ঘটনা স্থলে গিয়ে এই দৃশ্য দেখা গেছে। বিষয়টি মোটেও কোন ভৌতিক ব্যাপার নয় আমার মতে তালগাছ দুটি পানিতে দাঁড়িয় থাকার বৈজ্ঞানিক যুক্তি হচ্ছে গাছ দুটি যে পাড়ে দাঁড়িয়েছিল সেখান থেকে দীঘির পানির দুরত্ব প্রায় ১০ফিট নিচে। উপর থেকে গাছদুটি যখন উপড়ে যায় তখন পাড়ের বহু দুর এলাকা নিয়ে ফাটলের সৃষ্টি হয়ে অত্যাধিক শিকড়ের কারণে বিশাল পরিমান মাটি ওই গাছের গুড়িতে আটকে যায়। এসময় গাছটি ওই মাটির ভারে উল্টে না গিয়ে গুড়ি সহ নিচের দিকে সরে যায় এবং পানি থেকে পাড়ের উচ্চতা অনেক হওয়ায় একটু জোরে সরে গিয়ে নিচে মাটির ভারে গাছ দুটি সেখানে গিয়ে উল্টে না গিয়ে সোজা দাঁড়িয়েই থাকে। বিষয়টি গাছের গোড়ায় অধিক পরিমান মাটি লেগে থাকায় বিষয়টি এমন হয়েছে আসলে এটি ভৌতিক কোন বিষয় নয়। তবে গ্রাম এলাকার মানুষের নিকট বিষয়টি গুজব হলেও আজব একটি ঘটনা বলে প্রতিয়মান হয়েছে।

Facebook Comments

অফিস: হোল্ডিং#৩৫৯,রোড# ৮/২ মধ‍্য সরদারপাড়া, দুপচাঁচিয়া, বগুড়া।




সম্পাদক ও প্রকাশক: মো: মোছাব্বর হাসান মুসা।

নির্বাহী সম্পাদক
ইমরানুল হাসান (বি এ অনার্স) ম‍্যানেজমেন্ট।

 

বার্তা সম্পাদক: মো:জাকারিয়া হাসান।

মহিলা সম্পাদিকা: মোনিকা আক্তার মালা।