dannews24.com | logo

৩০শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ১৩ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

ছাতকে বুকা নদী থেকে মাটি নেওয়াকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ

প্রকাশিত : নভেম্বর ১০, ২০২০, ২৩:৫৩

ছাতকে বুকা নদী থেকে মাটি নেওয়াকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ

 

ছাতক প্রতিনিধি : ছাতকে বুকা নদী থেকে মাটি নেওয়াকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ। সংঘর্ষে গুরুতর আহত ইসলাম উদ্দিন( ৩০) কৈতক মেডিকেল হাসপাতালে চিকিৎসা চলা কালে হাতাহাতির ঘটনা ঘটেছে।উপজেলার জাউয়াবাজার ইউনিয়নের সাউদরগাঁও গ্রামে মঙ্গলবার সকালে সংঘর্ষের ঘটনায় আহতদের কৈতক হাসপাতালের ইনচার্জ মোজাহারুল ইসলাম চিকিৎসা প্রদান কালে সাউদরগাঁও গ্রামে যুবকরা উত্তেজিত হয়ে মেডিকেলের পরিবেশ নষ্ট করেছে। হাতাহাতি কালে ডাক্তার ও রোগীদের নিরাপত্তার জন্য প্রায় ৩০ মিনিট মেডিকেলের গেইট থালাবদ্ধ করে রাখা হয়।

খবর পেয়ে জাউয়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ সাজ্জাদুর রহমান একদল পুলিশ নিয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি শান্ত করেন।খবর নিয়ে জানা যায় সাউদরগাঁও গ্রামের জামাল উদ্দিনের পুত্র ইসলাম উদ্দিন সকালে বুকা নদী থেকে মাটি তুলতে গেলে একি গ্রামের চেরাগ আলীর পুত্র তাজ বাঁধা প্রদান করে এসময় সংঘর্ষে আহত হয় ইসলাম। স্থানীয় সুত্রে খবর পাওয়া যায় কৈতক মেডিকেল হাতাহাতি কালে সাউদর গাঁও গ্রামের রুসমত আলীর পুত্র মরম আলী (৩৫) জরাফত আলীর পুত্র আছলম আলী( ৩০)মৃত চেরাগ আলীর পুত্র গিয়াস উদ্দিন (৩৫) রিয়াজ উদ্দিন (৩২) মহিম উদ্দিন( ৩১) মাসুক মিয়ার পুত্র আল আমীন (৩০) আইয়ুব আলীর পুত্র হেলাল উদ্দিন সহ নাম অজানা বেশ কিছু যুবক রয়েছে। কৈতক মেডিকেল ঘটনায় সময়ে ইউপি সদস্য আব্দুর রহিম,মুহিবুর রহমান খান সাংবাদিক উজ্জীবক সুজন তালুকদার এর প্রচেষ্টায় রোগী ও রোগীর স্বজনরা নিরাপত্তা পেয়েছেন। সিংচাপইড় ইউনিয়নের সৈদের গাঁও গ্রামের একজন রোগীর স্বজন আলকাছ মিয়া তালুকদার সংবাদ কর্মীকে বলেন মরম আলী ও আছলম আলী নামের দুই যুবক মেডিকেলের বিতরে চিৎকার দিয়ে বলে এমপি মন্ত্রী খায়না আমাদের কাছে আর পুলিশ কি করবে বলে আটকে রাখা আসামিদের পিচনের দরজা দিয়ে পালিয়ে যেতে দেয় পুলিশ আসার আগেই।এই ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা দাবী করেছেন মেডিকেল আশা রোগীর স্বজনরা সহ এলাকাবাসী।






অফিস: হোল্ডিং#৩৫৯,রোড# ৮/২ মধ‍্য সরদারপাড়া, দুপচাঁচিয়া, বগুড়া।

সম্পাদক ও প্রকাশক: মো: মোছাব্বর হাসান মুসা। 01711366298/01812550877 mushanews2011@gmail.com

নির্বাহী সম্পাদক
ইমরানুল হাসান (বি এ অনার্স) ম‍্যানেজমেন্ট।

 

বার্তা সম্পাদক: মো:জাকারিয়া হাসান। 01796032336

মহিলা সম্পাদিকা: মোনিকা আক্তার মালা। ( বিএ অর্নাস) রাষ্ট্রবিজ্ঞান।