dannews24.com | logo

১লা আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ১৫ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

সোনাতলায় টেনিং-এ যাবার আগে জোরপুর্বক ধর্ষনের চেষ্টা

প্রকাশিত : জানুয়ারি ২৬, ২০২১, ২২:০৫

সোনাতলায় টেনিং-এ যাবার আগে জোরপুর্বক ধর্ষনের চেষ্টা

 

নুরে আলম সিদ্দিকী সবুজ স্টাফ রিপোর্টাঃ বগুড়ার সোনাতলায় সদ্য সেনাবাহিনীতে চাকরি পেয়ে ট্রেনিং-এ যাবার আগেই রাতের অন্ধকারে মোবাইলফোনে ডেকে এনে প্রেমিকাকে জোড়পুর্বক ধর্ষনের চেষ্টা করলে এলাকার লোকজন কর্তৃক হাতেনাতে ধরা পরে সিহাব নামের এক যুবক। এঘটনায় ঐ প্রেমিকার মা বাদি হয়ে থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।

এবিষয়ে ঐ প্রেমিকা অর্থাত উপজেলার জোড়গাছা ইউনিয়নের গোসাইবাড়ি পশ্চিম পারা গ্রামের জনৈক পিন্টু প্রামানিকের মেয়ের সাথে কথা বললে সে জানায়, একই ইউনিয়নের গোসাইবাড়ি পুর্ব পাড়া গ্রামের মোঃ মোজাফ্ফরের ছেলে সিহাব মিয়ার সাথে তার দির্ঘ দুই বছর যাবত প্রেমের সম্পর্ক চলে আসছিলো। এদিকে এবারের কোঠায় সেনাবাহিনীতে চাকরি হয়েছে বলে সিহাব তাকে জানায় এবং আগামি ২৯’শে জানুয়ারি সিহাব ট্রেনিং-এ যাবে বলেও জানায় তাকে।

সে আরো জানায়, সিহাব গত ১৯’শে জানুয়ারি মঙ্গলবার রাতে তাদের বাড়ির পেছনে এসে তাকে মোবাইলফোনে ডেকে নেয় এবং ট্রেনিং শেষে ফিরে এসে তাকে বিয়ে করবে এমন প্রলভোন দেখিয়ে তার ইচ্ছার বিরুদ্ধে জোরপুর্বক ধর্ষনের চেষ্টা করে। এসময় সে চিৎকার সুরু করলে এলাকার লোকজন ও তার পরিবারের লোকজন ছুটে এলে সিহাবকে হাতেনাতে আটক করে। এরপর সে তাদের এ দির্ঘদিনের সম্পর্কের কথা সকলকে খুলে বলে।

তার পরিবারের লোকজন জানায়, তাদের মেয়ের কাছথেকে ঘটনার বিস্তারিত জেনে স্থানীয়দের সাথে পরামর্শ করে নিজেদের সন্মান রক্ষার্থে ঐ রাতেই সিহাবের পরিবারের লোকজনকে খবর দেয় তারা। এরপর সংবাদ পেয়ে সিহাবের পরিবারের লোকজন তাদের বাড়িতে এসে ভুল স্বিকার করে বিয়ের প্রতিস্রুতি দিয়ে কৌশলে সেখান থেকে সিহাবকে ছারিয়ে নিয়ে যায়। কিন্তু সিহাবের সেনাবাহিনীতে চাকরি হওয়ার কারনে তার পরিবারের লোকজন পরবর্তিতে সবকিছু অস্বিকার করে বিয়ে না দেয়ার উদ্দেশ্যে বিভিন্ন তালবাহানা শুরু করে। তাই কোন উপায়ান্তর না পেয়ে সঠিক বিচারের আসায় সিহাবের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থানিতে ২১’শে জানুয়ারি বৃহস্পতিবার সোনাতলা থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন বলেও জানিয়েছেন অসহায় ভুক্তভোগি মেয়েটির পরিবারের লোকজন।

এবিষয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ রেজাউল করিম রেজা’র সাথে কথা বললে তিনি অভিযোগের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন বিষয়টি তদন্তের জন্য এসআই আ: রহিমকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে।

অপরদিকে অভিযোগের তদন্তভার অফিসার এসআই আঃ রহিমের সাথে কথা বললে তিনি জানান, অভিযোগের ভিত্তিতে বিষয়টির তদন্ত প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। সেইসাথে সঠিক তদন্তের মাধ্যমে এর বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে বলেও জানান তিনি।






অফিস: হোল্ডিং#৩৫৯,রোড# ৮/২ মধ‍্য সরদারপাড়া, দুপচাঁচিয়া, বগুড়া।

সম্পাদক ও প্রকাশক: মো: মোছাব্বর হাসান মুসা। 01711366298/01812550877 mushanews2011@gmail.com

নির্বাহী সম্পাদক
ইমরানুল হাসান (বি এ অনার্স) ম‍্যানেজমেন্ট।

 

বার্তা সম্পাদক: মো:জাকারিয়া হাসান। 01796032336

মহিলা সম্পাদিকা: মোনিকা আক্তার মালা। ( বিএ অর্নাস) রাষ্ট্রবিজ্ঞান।